Category Archives: অতিবাস্তব-গল্প

খাওয়াশেকল : মলয় রায়চৌধুরী

খাওয়াশেকল কেষ্টর বাবা মারা যাবার পর থেকেই আমায় এই রোগে ধরেছে, আমি নিজে একে রোগ মনে করিনা, বাড়ির সবাই মনে করে, কেষ্ট, কেষ্টর বউ, কেষ্টর ছেলে, ছেলের বউ, এমন কি নাতি আর নাতনিও, যাদের কোলে-পিঠে করে মানুষ করলুম, মনে করে … বিস্তারিত পড়ুন

Posted in অতিবাস্তব-গল্প, অরৈখিক গল্প, উত্তর-আধুনিক রূপকথা, ছন্নছাড়া সময়, ছন্নছাড়া সময়ের গল্প, পোস্টমডার্ন-গল্প, স্যাটায়ার | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

আঁস্তাকুড়ের এলেকট্রা : একটি গল্পকাব্য — মলয় রায়চৌধুরী

আঁস্তাকুড়ের এলেকট্রা : একটি গল্পকাব্য রেজিস্ট্রেশানের সময় বানান ভুল করে ফেলেছিল ক্লার্ক নবীন খান্না, মুখে পান সত্ত্বেও পরশ্রীকাতর ফিকে হাসি,  ঠোঁটের কোনায় লালচে ফেনা, পেটের ভেতর কৃষ্ণচূড়া ছড়িয়ে চলেছে ফিনফিনে পাপড়ি, টাকের জেদি কয়েকটা চুল ফ্যাকাশে,  আলস্য দেখে মনে হয় … বিস্তারিত পড়ুন

Posted in অতিবাস্তব-গল্প, অরৈখিক গল্প, উত্তর-আধুনিক রূপকথা, ছন্নছাড়া সময়ের গল্প, Uncategorized | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

ভিনিয়েট

হোগলা আর মৌমাছির জোড়ামুকুট, রাজড়ার বিকল্প বাস্তবের বিদঘুটে নীল জলে চোখ-নাক ভাসিয়ে একাকীত্বের একলষেঁড়ে আনন্দে ভুগছিলেন সোবেক সিংহ। সেবক নয়, সোবেক, সোবেক। আর একাকীত্ব এই জন্যে যে, বাদবাকি আশেপাশে পাড়া প্রতিবেশি, এলাকাবাসী, জ্ঞানীগুণী, গাইয়ে-বাজিয়ে, হাগিয়ে-পাদিয়ে ইত্যাদি নাগর/নাঙবাদি-প্রতিবাদী সবাই ইনকিউবেটারের তাপ … বিস্তারিত পড়ুন

Posted in অতিবাস্তব-গল্প | Tagged | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

জিন্নতুলবিলাদের রূপকথা

  গীতায় সর্বজ্ঞ ভগবান বলেছেন বটে অনেক কিছু, কিন্তু যা-যা বলেছেন তার কেবল একটা করেই মানে হয় না, বুঝলি? পাঁচ হাজার ফিট থেকে কী ভাবে, ডানা না ঝাপটিয়ে, শুধু দুপাশে আলতো মেলে দিয়ে, বাতাসে সাঁতরে দশ হাজার ফিট ওপরে উঠে … বিস্তারিত পড়ুন

Posted in অতিবাস্তব-গল্প | Tagged | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান